Articles

জাতীয়তাবাদী আশুতোষ মুখোপাধ্যায় ও তাঁর শিক্ষাভাবনা

প্রণব বর্মণ

ভট্টর কলেজ, দাঁতন, Email: talktopranab@gmail.com

  Volume VII, Number 2, 2017 I Full Text PDF

DOI: 10.25274/bcjms.v7n2.v7n2bnl03

সংক্ষিপ্তসার (Abstract):     

ঔপনিবেশিক শক্তির হাত ধরে উনিশ শতকে বাংলার সমাজ-সংস্কৃতির আমূল পরিবর্তনের সূত্রপাত হয়। মধ্যযুগীয় সামাজিক উপাদানগুলি অপসারিত হয়ে, যুক্তিবাদ, সুগঠিত রাষ্ট্র পরিকল্পনা ও জাতীয়তাবাদ প্রভৃতি বাঙালির মনে সঞ্চারিত হয়। অবশ্যই এর মাধ্যম ঔপনিবেশিক শাসন ও  ইংরেজী শিক্ষা। এই ইংরেজী শিক্ষাকে অবলম্বন করে সমাজে উদ্ভব হয় মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মত নব্য শ্রেণীর। জাতীয়তাবাদ ও ইউরোপীয় চিন্তাভাবনার মিশেল ঘটে বাংলার সমাজে। প্রাচ্য  ও প্রতীচ্যের যুথবদ্ধতায় সমাজে নতুন সম্ভাবনার প্রকাশ পেতে থাকে। বাঙালি মননের গড়ন নির্মিত হয় নতুন উপকরণ দ্বারা। এর প্রভাব পড়ে শিক্ষাচিন্তার ওপর। শিক্ষার প্রসারের মধ্যদিয়ে বাঙালি তথা ভারতীয়দের মধ্যে জাতি ও জাতীয়তাবোধ গড়ে তুলতে উদ্যোগী হয় এই মধ্যবিত্ত শ্রেণী। যারা অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছিলেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম হলেন আশুতোষ মুখোপাধ্যায়। ব্রিটিশ শক্তির প্রবল বিরোধিতা সত্ত্বেও বাংলার শিক্ষাচিন্তাকে জাতীয়তাবাদী খাতে প্রবাহিত করেছিলেন। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়কে কেন্দ্র করে বাংলা তথা ভারতে শিক্ষাচিন্তায় আমূল পরিবর্তন আনেন। শিক্ষা ব্যবস্থাকে ঔপনিবেশিক ধারায় প্রবাহিত না করে স্বতন্ত্র ধারার প্রবর্তনের পথপ্রদর্শক ছিলেন আশুতোষ মুখোপাধ্যায়। পরাধীন ভারতে তাঁর জাতীয়তাবাদী মন নিয়ে কীভাবে শিক্ষাকে অবলম্বন করে সমাজ সংস্কারের  প্রতি ব্রতি হয়েছিলেন সেটা এই প্রবন্ধের প্রতিপাদ্য বিষয়।

সূচকশব্দ: ঔপনিবেশিক শক্তি, জাতীয়তাবাদ, শিক্ষা , কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ও আশুতোষ মুখোপাধ্যায়।